ঢাকা ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

হারিয়ে যাওয়া বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিলো পাবনা জেলা পুলিশ

অভিযোগ
প্রকাশিত November 14, 2020
হারিয়ে যাওয়া বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিলো পাবনা জেলা পুলিশ
Spread the love

হারিয়ে যাওয়া বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিলো পাবনা জেলা পুলিশ

 

মো: ইয়াছিন শেখ,ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি : সড়কে কুড়িয়ে পাওয়া এক শারীরিক ও বাক প্রতিবন্ধী কিশোর কাবির আলী (১৪) কে তার বাবা-মা ও স্বজনদের নিকট ফিরিয়ে দিল পাবনা জেলা পুলিশ।

শনিবার বিকেলে পাবনা পুলিশ সুপারের কনফারেন্স রুমে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে কিশোর কে তার পারিবারিক স্বজনদের কাছে হাতে তুলে দেওয়া হয়। এ সময় পাবনার পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম বিপিএম,পিপিএম কিশোরের জন্য বাবা-মায়ের হাতে নগদ ১০ হাজার টাকা এবং পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নাসিম আহমেদ ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন।

পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম বলেন, কিশোরটি অনেক বুদ্ধিমান। তাকে টেকনিক্যাল ট্রেডে পড়ানোর ব্যাপারে পরিবারিক সদস্যদের পরামর্শ দেন। এর জন্য পাবনা জেলা পুলিশ থেকে তাকে সব ধরনের আর্থিক সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য; গত মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) পাবনা শহরের জনৈক এক ব্যক্তি এই কিশোর ছেলেটিকে সড়কে পেয়ে নিরাপত্তার জন্য দ্রুত থানাতে হস্তান্তর করেন। শান্ত স্বভাবের এই কিশোর আকার ইঙ্গিত ছাড়া কোন কথা বলতে পারে না। স্থানীয় কেউ যদি এই কিশোর ছেলেটির সন্ধান জেনে থাকেন তবে অবশ্যই তাকে পাবনা সদর থানায় দ্রুত যোগাযোগের জন্য অনুরোধ জানান সদর থানা পুলিশ। গেল কয়েকদিন যাবৎ থানায় কিশোরটিকে পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নাসিম আহমেদ নিজ সন্তানের ন্যায় মানবিকতার সাথে ছেলেটি লালন পালন করেন।

গত ১৫’ অক্টোবর চাপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানার মরদানা গ্রামের নুরুল হুদার ছেলে শারীরিক ও বাক প্রতিবন্ধী কাবির আলী হারিয়ে যায়। তার পরিবারের সদস্যরা অনেক খোঁজাখুজির পর না পেয়ে ১৮ অক্টোবর শিবগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন (যার নং- ৮৫৪)। তারপরও পরিবার তাদের বিভিন্ন এলাকায় যুবকদের নিয়ে অনেক খোঁজাখুজি করেও কাবির’র সন্ধ্যান পায় না।

অবশেষে তাদের এলাকার বড় ভাই পাবনা জেলায় প্রাইভেট কোম্পানীতে চাকরি করেন। সে পাবনা জেলার সুজানগর যুবসমাজের একটি ফেসবুক পেজে কাবির আলীর ছবি দিয়ে তার সন্ধ্যান ব্যাপারে জানতে পারেন। তখন কাবিরের ছবি স্কিনসট দিয়ে পাঠিয়ে দিলে প্রাথমিক নিশ্চিত হয়। তারপর পাবনা সরকার ট্রাভেলস নামক বাসের পেছন থেকে নাম্বর নিয়ে কথা বললে তারা পাবনা থানা পুলিশের সাথে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন। অবশেষে পাবনা সদর থানা পুলিশ পরিবারের সাথে ভিডিও কনফারেন্স হারিয়ে যাওয়া কাবিরকে চুরান্তভাবে নিশ্চিত করেন।

নভেম্বর ২০২০
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০