লালমোহনে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে গেল ডাঃ হুমায়ুন কবির

প্রকাশিত: ৪:২৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯

লালমোহনে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে গেল ডাঃ হুমায়ুন কবির

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি :-

ভোলা লালমোহন পৌরশহরের বাসিন্দা ও ভোলা দক্ষিন আইচা সৌদি হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃহুমায়ুন কবিরের বিরুদ্ধে কর্তব্যস্থলে অনুপস্থিত, রোগীর সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ, রোগীকে জিম্বি করে নিজের ঘরে দেওয়া ফার্মেসি থেকে ঔষধ নিতে বাধ্য করাসহ বিস্তার অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

 

এসব অভিযোগের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিজান চালায় ওই ডাক্তারের বাসায়। ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিত টের বলে একাধিক সুত্রে নিশ্চিত করেন।

 

এদিকে দীর্ঘ দিন যাবত নিজের কর্মস্থলে না গিয়ে বাসায় বসে টাকার বিনিময়ে রোগী দেখার পাশাপাশি নিজের বসত ঘরে দেওয়া ফার্মেসি থেকে রোগীকে ঔষধ নিতে বাধ্য করাসহ বিস্তার অনিয়মের অভিযোগ ডাঃহুমায়ুন কবিরের মোবাইলে একাধিক বার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

 

পরে তিনি নিজেই ফোন করলে এ প্রান্ত থেকে পরিচয় দিতেই তিনি ব্যস্ততার অজুহাত ফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

 

অভিযান পরিচালনাকারী ” জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরের ভোলা জেলার সহকারী পরিচালক ( ম্যাজিস্ট্রট) মাহামুদুল হাসান বলেন আমি ওনার ( ডাঃহুমায়ুন কবিরের) বাসায় গিয়েছিলাম, তাকে বাসায় পাইনি।

 

ওনার বিরুদ্ধে আরও যেসব অভিযোগ রয়েছে সেসব অভিযোগ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের আওতায় পড়ে না কোন অনিয়ম পেলে আমি তাকে সর্তক করতাম।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ