২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৬ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

ভূরুঙ্গামারীতে বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ১২ দোকান পুড়ে ছাই

অভিযোগ
প্রকাশিত অক্টোবর ২৮, ২০২১
ভূরুঙ্গামারীতে বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ১২ দোকান পুড়ে ছাই
ভূরুঙ্গামারীতে বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ১২ দোকান পুড়ে ছাই
ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) জেলা প্রতিনিধি:– কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে বৈদ্যূতিক শর্ট সার্কিট থেকে সৃষ্ট ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১২টি দোকান ও আসবাপত্রসহ অন্যান্য মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করছেন ক্ষতিগ্রস্ত ও এলাকাবাসীরা। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের কুড়ার পাড় ইটভাটা-সংলগ্ন বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানান, উপজেলার পাইকের ছড়া ইউনিয়নের কুড়ার পাড় এলাকার ইটভাটা বাজারে রাত আনুমানিক পৌনে একটার দিকে একটি চা-দোকান থেকে আগুনের সূএপাত হয়। মুহূর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়ে। পরে এলাকাবাসী আগুন দেখতে পেয়ে নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর আগেই ১২টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে একটি দোকানের একাংশ রক্ষা করেন এবং আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। সেখানে দু’-তিনটি চায়ের দোকান এবং বাকিগুলো মুদি দোকান ছিল। এতে অর্ধকোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

ক্ষতিগ্রস্ত দোকানি আকতার আলী ও আলমগীর হোসেন বলেন, আমাদের দোকানের ভেতরে থাকা সব মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে আমাদের প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত চা দোকানদার আব্দুস সামাদ বলেন, ভূরুঙ্গামারীতে ফায়ার স্টেশন না থাকার কারণে বিভিন্ন সময়ে অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। আমরা এখানে দ্রুত একটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের দাবি জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের স্টেশনমাস্টার ইমন মিয়া বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই বাজারটির সবগুলো দোকান পুড়ে গেছে। আমরা এসে একটি দোকানের একাংশ রক্ষা করতে পেরেছি। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের উৎপত্তি হয়েছে বলে আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি।

ভূরুঙ্গামারী পল্লীবিদ্যুত অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার কাওছার আলম বলেন, বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখবো।

Please Share This Post in Your Social Media
February 2024
T W T F S S M
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
272829