২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

বগুড়ার মথুরায় আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে সন্ত্রাসী বাহীনিদ্বারা জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা

অভিযোগ
প্রকাশিত মে ২, ২০২১
বগুড়ার মথুরায় আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে সন্ত্রাসী বাহীনিদ্বারা জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা

বগুড়ার মথুরায় আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে সন্ত্রাসী বাহীনিদ্বারা জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা

 

 

মোঃ জান্নাতুল নাঈম,শিবগঞ্জ থেকেঃ-

বগুড়ার নামুজা ইউনিয়নের মথুরা সিঙ্গেরেজান নামক স্থানে বিরোধপূর্ণ জমি কোর্ট থেকে অনুপ্রেবেশ নিষেধাজ্ঞা থাকা স্বত্বেও আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে সন্ত্রাসী বাহীনিদ্বারা জোরপূর্বক দখল ও ঘর-বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বগুড়া সদরের বামনপাড়া গ্রামে মজিবর রহমানের পুত্র আশরাফুল ইসলাম, গত ২৪/১১/১৯ইং তারিখে বগুড়া জেলা জজ আদালতে তফসিল বর্ণিত ১০ শতক সম্পত্তি যা বগুড়া জেলা মৌজার মথুরা, জে এল নং৯, সিএস খতিয়ান নং ১৭, সাবেক দাগ নং ৩৯।

৪৮৮/১২ নং মূলে একটি বন্টন মামলা করেন। উক্ত মামলায় ১০নং, ১১, ও ১২নং বিবাদীদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালত ২৪/১১/১৯ইং তারিখে বিষয়টি আমলে নিয়ে অন্তবর্তী কালীন নিষেধাজ্ঞা আদেশ দেন। এ মামলার বিবাদী হলেন, ১০নং আব্দুল হান্নান, ১১নং এনামুল হক উভয়ের পিতা আব্দুল হামিদ, ১২নং আতিকুর রহমান পিতা মোখলেছুর রহমান (বাবলু মিয়া)। উভয় চিঙ্গাশপুরের বাসিন্দা।

এরই ধারাবাহিকতায় আদালতের রায় কে অমান্য করে ১২নং বিবাদী আতিকুর রহমান বিরোধপূর্ণ জমিতে একদল সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে ইট, বালু, সিমেন্ট, রডসহ বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করে। এতে আশরাফুল বাঁধা প্রদান করলে বিবাদী আতিকুর রহমান তাঁকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।

একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁকে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। পরে ২৫/০৪/২১ইং তারিখে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ বিষয়ে আশরাফুল বলেন, উক্ত ঘটনা তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করি।

উল্লেখিত ঘটনায় আইন অমান্যকারী ভূমিদস্যু লাটিয়াল বাহিনী সন্ত্রাসী কার্যকলাপ থেকে আমি ও আমার পরিবার যেন রক্ষা পাই। একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে রাষ্ট্রের ন্যায় বিচার থেকে যেন বঞ্চিত না হই। এমনটাই দাবি করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

Please Share This Post in Your Social Media
May 2024
T W T F S S M
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031