২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৬ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

ভারতে আইফোনের উৎপাদন বাড়াতে চায় অ্যাপল!

অভিযোগ
প্রকাশিত জানুয়ারি ২৪, ২০২৩
ভারতে আইফোনের উৎপাদন বাড়াতে চায় অ্যাপল!

ভারতে আইফোনের উৎপাদন বাড়াতে চায় অ্যাপল!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: করোনাভাইরাস সম্পর্কিত বেশকিছু বিধিনিষেধের মধ্যে চীনে আইফোন উৎপাদন বাধার মুখে পড়ে। যার জন্য চীন থেকে উৎপাদন কার্যক্রম কিছুটা সরিয়ে নিতে চায় টেক জায়ান্ট অ্যাপল। আর বিপরীতে ভারতে আইফোনের উৎপাদন বাড়াতে চায় প্রতিষ্ঠানটি।
ভারতের বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের বরাতে সিএনবিসি এ কথা জানিয়েছে।

সোমবার (২৩ জানুয়াারি) পীযূষ গোয়েল বলেন, ‘চীন থেকে আইফোনের উৎপাদন কার্যক্রম অনেকটাই সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে অ্যাপল। তাই প্রতিষ্ঠানটি ভারতে আইফোনের উৎপাদন বাড়াতে চায়।’

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে অ্যাপল তাদের মোট আইফোন উৎপাদনের প্রায় ৫ থেকে ৭ শতাংশ ভারতে উৎপাদন করে। যদি না আমি ভুলে বুঝে থাকি, এ হারকে বাড়িয়ে তারা ২৫ শতাংশে নিয়ে যেতে চাইছে।’তবে অ্যাপল কবে নাগাদ এ লক্ষ্য পূরণ করতে চায়, এ বিষয়ে কোনো নির্দিষ্ট মন্তব্য করেননি ভারতীয় শিল্পমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘তারা ভারতে উৎপাদিত তাদের নতুন সংস্করণের মডেল বাজারে ছেড়েছে।’

তিনি অ্যাপলকে ভারতের আরও একটি সাফল্যগাথা হিসেবে অবহিত করেছেন। এ সময় বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতির সঙ্গে ব্যবসা করার নানা সুবিধার কথাও তুলে ধরেন গোয়েল।

এদিকে এ বিষয়ে জানতে অ্যাপলের একজন মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি মন্তব্য করতে রাজি হননি বলে জানিয়েছে সিএনবিসি।

গত বছর অ্যাপল তাদের ফ্ল্যাগশিপ আইফোন-১৪ সংস্করণ ভারতে উৎপাদন শুরু করে। সে বারই প্রথমবারের মতো কোনো নতুন সংস্করণ বাজারে ছাড়ার এত কাছাকাছি সময়ে সেটি ভারতে উৎপাদন করেছিল টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি। কেননা ২০১৭ সালে থেকেই ভারতে আইফোনের উৎপাদন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে তারা। প্রথমে উইস্ট্রনের মাধ্যমে ভারতে আইফোন উৎপাদন করত অ্যাপল। পরে আইফোনের প্রধান অ্যাসেম্বেলার ফক্সকনের মাধ্যমে উৎপাদন শুরু করে তারা। এদিকে সোমবার ভারতের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব এক টুইট বার্তায় বলেন, ডিসেম্বরে ভারত থেকে অ্যাপলের রফতানি ১ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে।

ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক টেক জায়ান্ট অ্যাপল বর্তমানে চীনে তাদের আইফোনের সংস্করণগুলোর সিংগভাগই তৈরি করে থাকে। তবে সেখান থেকে তাদের কার্যক্রম কিছুটা সরিয়ে নিয়ে উৎপাদনে বৈচিত্র্য আনতে চাইছে আইফোনের নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। কারণ একে তো কোভিড-১৯ সংক্রান্ত কঠোর বিধিনিষেধ; আবার এসব বিধিনিষেধ নিয়ে ঝোংঝোর আইফোন কারখানার কয়েকশ শ্রমিক বিক্ষোভ; এসব কারণে সেখানে প্রতিষ্ঠানটির উৎপাদন কার্যক্রম ব্যাপক আকারে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এদিকে গত বছরের সেপ্টেম্বরে জেপি মরগানের বিশ্লেষকরা এক পূর্বাভাসে বলেছিলেন, ২০২৫ সাল নাগাদ অ্যাপল তাদের মোট উৎপাদনের এক চতুর্থাংশ চীন থেকে সরিয়ে নেবে।

Please Share This Post in Your Social Media
February 2024
T W T F S S M
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
272829