৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ট্রফি নিয়ে রাজধানীতে জ্যোতি-সালমারা

অভিযোগ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২
ট্রফি নিয়ে রাজধানীতে জ্যোতি-সালমারা
Spread the love

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ট্রফি নিয়ে ঢাকায় ফিরেছেন নিগার সুলতানা জ্যোতি-সালমা খাতুনরা। সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টায় রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। দেশে পৌঁছেই গণমাধ্যমে দেশ ছেড়ে যাওয়ার আগে দেওয়া সেই প্রতিশ্রুতি ফের মনে করিয়ে দিলেন অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। কথা রেখে ট্রফি নিয়ে ফিরতে পেরে খুশি তিনি।

গত ৮ সেপ্টেম্বর দেশ ছাড়ার আগে নারী দলের অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জনই থাকবে তাদের প্রধান লক্ষ্য। অধিনায়ক নিজের দেওয়া সেই প্রতিশ্রুতি রাখতে পেরেছেন।

বাছাই পর্বের সেমি-ফাইনালে পা দিয়ে বাংলাদেশ নিশ্চিত করে ২০২৩ সালের আইসিসি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্ব। ফাইনালের আগেই সেমি-ফাইনাল জয়ে বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত হয় টাইগ্রেসদের। তারপর রোববার ফাইনালে আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের হ্যাটট্রিক শিরোপা অর্জন করে বাংলার মেয়েরা।

দেশে ফিরে মঙ্গলবার জ্যোতি বলেন, ‘আমিরাতে যাওয়ার আগেই বলে গিয়েছিলাম, শুধু কোয়ালিফাই খেলতে চাই না। যেহেতু আমরা এফটিপিতে আছি তাই বাইরের টি-টোয়েন্টি সিরিজ গুলো খেলব। তাই আমাদের টার্গেট থাকবে অবশ্যই সিরিজ নেওয়ার এবং জেতার। এর ফলে আমরা যদি র‍্যাঙ্কিং এগিয়ে যেতে পারি আমাদেরকে আর কোয়ালিফাই খেলতে হচ্ছে না। আশা করছি এই প্ল্যানে আমাদের ক্রিকেট বোর্ড এগোচ্ছে এবং আমরাও সেই অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি।’

জ্যোতি আরও যোগ করেন, ‘আমি আমাদের দিক থেকে চিন্তা করছি কারণ আমরা কিন্তু ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন। আমাদের টিমটা দেখবেন যে অলমোস্ট যারা এশিয়া কাপ খেলেছেন অনেকেই আছেন। এখানে সবাই এক্সপেরিয়েন্স এবং যেহেতু ঘরের মাঠে খেলা আমার কাছে মনে হয় নিজেদেরকে এগিয়ে রাখাটাই উচিত। আমরা যেহেতু ভালো একটা প্রিপারেশন পেয়েছি এবং চ্যাম্পিয়নশিপের মত বড় ইনস্পিরেশন আর কোন কিছু হতে পারে না। তাই আমার কাছে মনে হয় আমরা কোয়ালিফাই করে এসেছি যেটা আমাদেরকে অন্যরকম একটা বুস্ট আপ করে রাখছে।’

December 2022
T W T F S S M
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031