ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ আহত ২০

প্রকাশিত: ১:২৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩, ২০১৯

ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ আহত ২০

বিশেষ প্রতিনিধি:- ছাতকের গোবিন্দগঞ্জ কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে অন্তত আহত ২০ জন,জানাযায় গবিন্দগঞ্জ কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের গঠনায় আজ

দুপুরে মৎস ব্যবসায়ী সহ গুরুতর আহত হন ২০ জন,কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নাজমুল হুসেন রাজের এবং উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা দ্বীনুল ইসলাম শ্যামল গ্রুপের মধ্যে এ গঠনা ঘঠে আজ দুপুর ১-৩০ মিনিটের সময় কলেজ গেইটের

সামনে,এ সময় দ্বীনুল ইসলাম শ্যামল সমর্থীত উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক জাহিদ আহসান ডালিম প্রকাশ্যে ৪ রাউন্ড গুলি করেন বন্ধুক দিয়ে এমন অভিযোগ করেন কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নাজমুল

হুসেন,জরুরী ভিত্তিতে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে সবাই কে পাঠানো হয়েছে,আহত,ছাত্রলীগ নেতা সেলিম,রমজান,নাবিল,আরশ,জুনেদ,হাবিব,রুবেল,অন্যদের স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে,কলেজ ছাত্রলীগ নেতা তারেক আহমদ জানিয়েছে আমরা হঠাৎ করে দেখতে পেলাম কিছু বহিরাগত অছাত্ররা,দা,রট,বন্ধুক নিয়ে ডালিমের নেতৃত্ত্বে আমাদের নেতাকর্মীদের উপর হামলা

চালায়,এবং গুলি করে,পরে আমরা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা জড়ো হয়ে তাদের ধাওয়া করি,দফায় দফায় ধাওয়া পালটা ধাওয়া হয় পরে এক পর্যায়ে কলেজের সেক্রেটারি গ্রুপের অনুসারীরা শ্যামল গ্রুপকে ধাওয়া দিয়ে গোবিন্দগঞ্জ ট্রলার ঘাট পর্যন্ত নিয়ে চলে যায়,বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা দ্বীনুল ইসলাম শ্যামলের মোবাইলে কল দিলে তিনি

কল রিসিভ করেন নাই,ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষের ফলে সিলেট সুনামগঞ্জ সড়কে শত শত যান চলাচল আটকে যায়,পরে ছাতক থানা পুলিশের নিয়ন্ত্রনে পরিস্থিতি শান্ত হয়,এখন পর্যন্ত পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্ট।।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ